বুধবার, নভেম্বর ২৫, ২০২০

শ্রমিকদের সমস্যার সমাধান করতে সেলিম ওসমানকে চাই হাতেম কে নয় -পলাশ

 

ফতুল্লা প্রতিনিধি মোঃ রবিন : মাইক্রো ফাইভার লিঃ এর শ্রমিকদের সমস্যার সমাধানের জন্য মানববন্ধন আয়োজন করেন।  মাইক্রো ফাইভারের শ্রমিক জিয়া উদ্দিন এর সভাপতিত্বে।

রবিবার (১১ অক্টোবর ) সকাল সাড়ে ১১ টায় প্রেসক্লাবের সামনে  শ্রমিকদের এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। প্রধান অতিথি হিসেবে  উপস্থিত ছিলেন,জাতীয় শ্রমিকলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির শ্রম উন্নয়ন ও কল্যাণ বিষয় ক সম্পাদক মোঃ কাওছার আহম্মেদ পলাশ

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মোঃ কাওছার আহম্মেদ পলাশ বলেন, জেলা প্রশাসন ও গোয়েন্দাদের এ বিষয়টি সুষ্ঠ ভাবে ক্ষতিয়ে দেখার আহবান জানিয়ে বলছি যদি আমার শ্রমিক অন্ন্যায় করে তাহলে যে শাস্তি দেবেন তা মাথা পেতে নেবো, কিন্তু বিকেইমর সহ সভাপতি মোঃ হাতেম কে নয়।

তিনি বলেন, মাইক্রো ফাইভার বন্ধের বিষয়ে সমাস্যার সমাধানের জন্য বিকেইমর সহ সভাপতি মোঃ হাতেম কে নয়,প্রয়োজন সভাপতি এ কে এম সেলিম ওসমানের হস্তক্ষেপ চাই। বিগত দিনে নারায়ণগঞ্জ -৫ আসনের সাংসদ এ কে এম সেলিম ওসমানের হস্তক্ষেপে নারায়ণগঞ্জে অনেক সমস্যার সমাধান হয়েছে। সেলিম ওসমান কে উদ্দেশ্য করে বলেন আপনার মাধ্যমে যে সমস্ত সমস্যা সমাধান করেছে  তাতে করে নারায়ণগঞ্জের মালিক ও শ্রমিকরা খুশি হয়েছেন,কিন্তু আপনার সহ সভাপতি মোঃ হাতেমের মাধ্যমে শ্রমিক মালিকের কোনো সমস্যা সমাধান হয়নি এমন ইতিহাসের নজির নেই। তার মাধ্যমে শ্রমিক জুলুম নির্যাতনের স্বীকার হয়েছে বার বার। তাই আপনাকে অনুরোধ করছি এ সমস্যা সমাধানে হাতেম কে সড়িয়ে আপনি নিজে শ্রমিকদের সমস্যা সমাধান করুন। ৪৫ টাকার সূতার ববিন ভাঙ্গার ঘটনা নিয়ে শ্রমিকদের মধ্যে অরাহকতা সৃষ্টি করা হচ্ছে।

তিনি আরো বলেন, এ বিষয়ে সমাধানের জন্য মালিক ও হাতেম মিয়ার কাছে গিয়েছিলাম তারা বলছিলেন শনিবারের মধ্যে সমাধান হবে। তার পর দেখলাম সমস্যার সমাধান না করে কারখানা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। তিনি মালিক কে প্রশ্ন করে বলেন ৪৫ টাকার সূতার ববিন নিয়ে যে কাহিনি তৈরি করেছেন আপনার ষ্টাপদের দিয়ে ঘটনা সৃষ্টি করে ৫শ টাকা জরিমানা করেছে নয় এটা কিসের আলামত, এর কারনে জরিমানা করে শ্রমিকদের মধ্যে অরাজকতা সৃষ্টি করেছেন। কারন বর্তমান প্রেক্ষাপট নিয়ে জননেত্রী শেখ হাসিনা সরকারের বিরুদ্ধে, যারা দেশে জামাত বিএনপির বিপ্লবের নামে ধর্ষনের ইস্যুকে কাজে লাগিয়ে অরাজকতা সৃষ্টি করেছেন,এটাকে এগিয়ে নেওয়ার জন্য শ্রমিকদের উস্কানি রাজপথে নামানোর জন্য স্বরযন্ত্রের অংশ হিসেবে কারখানায় আপনার ষ্টাপদের এই ঘটনা ঘটিয়েছেন। ৪৮ ঘন্টার মধ্যে যদি শ্রমিকদের সমস্যার সমাধান না করেন তাহলে ৭৪ সংগঠনের শ্রমিকদের নিয়ে আবারও কর্মসূচী দিতে বাধ্য হবো।

এ সময় আরও বক্তব্য রাখেন, আঞ্চলিক জাতীয় শ্রমিকলীগের সাধারণ সম্পাদক এস এম হুমায়ুন কবির, উইনাইটেড ফেডারেশন অব গার্মেন্টস ওয়ার্কসের জেলা শাখার সভাপতি শাহাদাৎ হোসেন সেন্টু, সাধারণ সম্পাদক মোঃ রাজু আহমেদ, মোঃ রফিকুল ইসলাম, মোঃ শামীম, মোসাম্মৎ পারুল,খলিল প্রমুখ।

 

নারায়ণগঞ্জ কথা এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

Shares
error: Alert: Content is protected !!