শনিবার, নভেম্বর ২৮, ২০২০

কিশোর গ্যাংয়ের ১১ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব-১১

 

নারায়ণগঞ্জ কথা : ফতুল্লা মডেল থানার চাঁনমারী মাউরাপট্টি সেকশনমাঠ এলাকায় বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে এলাকায় ত্রাস ও জনমনে ভয়ভীতি সৃষ্টিকারী কিশোর গ্যাং এর ১১ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১১। 

গ্রেফতারকৃতরা হলেন মোঃ রাসেল মিয়া ওরফে রাসেল (১৮), মোঃ জালাল (১৮), মোঃ আমিনুল ইসলাম (২৩), মোঃ জনি ওরফে শফিকুল ইসলাম (১৮) , মোঃ জাকির হোসেন ওরফে জাকির (১৮) , মোঃ আনোয়ার (১৮), মোঃ জুয়েল রানা (২২) ,মোঃ আবু নাঈম (১৮) , মোঃ ফেরদৌস ইসলাম (১৮), মোঃ আব্দুল্লাহ ওরফে শুভ (২৪) , মোঃ সাইফুল ইসলাম ওরফে শান্ত (১৮)। গত ৯ অক্টোবর দিবাগত রাতে র‌্যাব-১১ তাদের গ্রেফতার করে।
শনিবার ( ১০ অক্টোবর) বিকালে র‌্যাব-১১ এর সিনিয়র অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো: সুমিনুর রহমান স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য জানিয়েছেন।


র‌্যাব কর্মকর্তা মো: সুমিনুর রহমান জানান, গ্রেফতারকৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ ও প্রাথমিক অনুসন্ধানে জানা যায় তারা সবাই দুষ্কৃতিকারী ও কিশোর গ্যাং গ্রুপের সক্রিয় সদস্য। তারা দীর্ঘদিন যাবৎ রাস্তা ঘাটে পরিকল্পিতভাবে দলবদ্ধ হয়ে সংঘাত সৃষ্টি ও জনমনে ভয়ভীতি দেখিয়ে এলাকায় ত্রাস সৃষ্টি করে আসছিল। এছাড়াও ঐ এলাকায় কোন অপরিচিত লোক আসলে জিম্মি করে মূল্যবান জিনিসপত্র জোরপূর্বক ছিনিয়ে নেয়। 
গত ৮ অক্টোবর কিশোর গ্যাং গ্রুপের উক্ত সদস্যরা অপর এক কিশোরকে অপহরণ করে চাঁনমারী মাউরাপট্টি সেকশনমাঠ এলাকায় একটি পরিত্যক্ত ভবনে আটকে রাখে এবং মারধর করে তার কাছে থেকে ৩০০০/- টাকা ছিনিয়ে নেয়। পরবর্তীতে ভিকটিম এর মায়ের কাছ ফোন করে ৪০০০০/- টাকা মুক্তিপণ দাবি করে। ভিকটিম এর মা ১০০০০/- টাকা দিবে বলে জানায়। তারপর ভিকটিম এর মা র‌্যাবের কাছে একটি অভিযোগ করে। ভিকটিম এর মায়ের অভিযোগের সত্যতা পায় র‌্যাব-১১ । 


গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে ফতুল্লা থানায় আইনানুগ কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন।

 

নারায়ণগঞ্জ কথা এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

Shares
error: Alert: Content is protected !!