শুক্রবার, নভেম্বর ২৭, ২০২০

করোণা ভাইরাস রোগীর গোসল দাফনের জন্য অনেক দাফন-কাফন কমিটির টিম কে ফোন দেওয়া হয় কিন্তু তারা সকলেই আসতে পারবে না বলে জানান : মো: জুয়েল প্রধান

 

নারায়ণগঞ্জ কথা: নারায়ণগঞ্জে খানপুর হাসপাতালে হামিদুল রহমান (৬৮) গণকপাড়া মুন্সিগঞ্জ এলাকার এক ব্যক্তি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন থাকা অবস্থায় শনিবার (৩ অক্টোবর) ইন্তেকাল করেন। হামিদুল রহমানের মৃতদেহ গোসল করান নারায়ণগঞ্জ জেলার মুক্ত গার্মেন্টস শ্রমিক ফেডারেশন এর সভাপতি মো: জুয়েল প্রধান ।

মো: জুয়েল প্রধান নারায়ণগঞ্জ কথা ডটকম অনলাইন পত্রিকার সাংবাদিক রাজু খন্দকার কে বলেন, নারায়ণগঞ্জ খানপুর হাসপাতলে একজন করোনার রোগী মারা যায় সে সুবাদে করোণা ভাইরাস রোগীর গোসল দাফনের জন্য অনেক দাফন-কাফন কমিটির টিম কে ফোন দেওয়া হয়। কিন্তু তারা সকলেই কিছু-না-কিছু কাজের কারণে আসতে পারবে না বলে জানান, সে সময় আমাকে খানপুর হাসপাতাল থেকে ফোন দেয় আর আমি সাথে সাথে সেখানে আমার দাফন-কাফন কমিটির টিম নিয়ে যাই। আর করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়া সেই মৃতদেহটিকে গোসল করাই ও দাফন কাফনের ব্যবস্থা করি। খানপুর হাসপাতালে মৃতদেহ গোসল করানোর জায়গার খুব সমস্যা হয়েছিল। তাই আমি আমাদের মাননীয় ৫ আসনের সংসদ সদস্য এমপি এ.কে. এম. সেলিম ওসমান মহোদয়ের কাছে অনুরোধ করছি, তিনি যেন এই বিষয়টা তার আমলে নেন।

তিনি আরো বলেন, খানপুর হাসপাতালে যে সকল রোগী করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা যায় তাদের গোসল করানোর একটা জায়গার ব্যবস্থা করে দিবেন। এটা আমার অনুরোধ আপনার কাছে। আমি সর্ব সময় আমার মহল্লায় দাফন কাফন কমিটির টিম সদস্য নিয়ে কাজ করে থাকি। সে সুবাদে আল্লাহ তাআলা আমাকে যতদিন সুস্থ রাখবেন আর যতদিন বেঁচে থাকব। আমার এই দাফন-কাফন কমিটির টিম মেম্বারদেরকে নিয়ে কার্যক্রম চালিয়ে যাব। আজ যে ব্যক্তি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে সে হয়তো কারো বাবা কারো ভাই হয়তো কারো চাচা, তাই সবাইকে অনুরোধ করব করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে কেউ মারা গেলে সে নিয়ে ভয় না করে, করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত মৃতদেহটি দাফন-কাফন ও গোসলের ব্যবস্থা করবেন। আর যদি আপনারা না পারেন প্রয়োজন হলে আমার এই নাম্বারে ফোন দিবেন – 01712690959

 

নারায়ণগঞ্জ কথা এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

Shares
error: Alert: Content is protected !!