রবিবার, নভেম্বর ২৯, ২০২০

নাই হলো কুকুরের মাংস কিন্তু ইন্ডিয়া থেকে আমদানি করা এগুলি কিসের মাংস

 

নারায়ণগঞ্জ কথা : নারায়ণগঞ্জ ফতুল্লা এলাকায় ৫০কেজি কুকুরের মাংস সহ দুইজন আটক বলে শিরোনাম দিয়ে ফেসবুকে একটি ভিডিও ভাইরাল হয়।এ বিষয়ে এলাকাবাসি বলেন, বিগত দিন ধরে ওরা এসব মাংস এলাকায় বিরিয়ানির দোকানে দিচ্ছে কিন্তু তা কুকুরের মাংস নাকি গরুর মাংস তা এলাকাবাসী আজও জানেনা।

এ বিষয়ে আরো জানতে নারায়ণগঞ্জ ফতুল্লা পাগলা বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি আলহাজ্ব জাহাঙ্গীর  নারায়ণগঞ্জ কথা ডটকম পত্রিকার সাংবাদিককে বলেন, আমরা পাগলা বাজারে কুকুরের মাংস পাওয়া গেছে বলে শুনতে পাই তখন আমরা ঘটনাস্থলে যাই ।জব্দকৃত মাংস এলাকাবাসী এবং সাধারন জনতা কুকুরের মাংস বলে দাবি করেন পরে আমরা থানায় ফোন দেই পুলিশকে অবগত করি এবং জব্দকৃত মাংস ও দুই যুবককে থানায় নিয়ে যেতে বলি ।

এর আগেও এরকম ভাবে মানুষ জড়ো হয়ে বিরিয়ানির দোকানে ইন্ডিয়ান মাংস কেনার অভিযোগ পাই বিগত এক বছর আগে সেই সময় আমরা প্রতিটি দোকানদারকে এসকল মাংস কিনতে না বলি এবং তাদেরকে বলা হয় আপনারা নিজেরা গরু এনে কেটে ব্যবসা করে কিন্তু তারা রাত্রে আধারে গোপনে এ সকল মাংস ক্রয় করে আমরা প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি এসব মাংস কিসের তা আপনারা যাচাই করুন এবং এর একটি পদক্ষেপ নিন

পাগলা বাজার ব্যবসায়ী সমিতির কোষাদক্ষ মোঃ জাহিদ হাসান বেলাল বলেন, নারায়ণগঞ্জ ফতুল্লা পাগলা বাজারে ইন্ডিয়া থেকে আমদানি করা গোস্তো জব্দ করা হয়েছে, বিরিয়ানির দোকান গুলোতে গোপনে বিক্রি করে এইসব গোস্তো প্রায় এক বছর আগে পাগলা বাজার জামে মসজিদের সাধারণ সম্পাদক মোঃ হাজী আফজাল সাহেব বিষয়টি বাজার সমিতি নিকট জানায় তখন আমরা এই গোস্তো কারবারি কে ডেলিভারি দেওয়ার সময় পেয়ে জাই এবং বিরিয়ানির দোকানদারদের কে ডেকে আনি বাজার সমিতির অফিসে সকল নেতাদের উপস্থিতিতে বিষয় টি সমাধান করা হয়, ইন্ডিয়ান সাপ্লাই গোস্তো কিসের গোস্তো এটা মুসলমানদের খাওয়া জায়েজ কিনা সেটার কোনো প্রমাণ তারা দিতে পারেনি তাই তারা পাগলা বাজারে এই গোস্তো বিক্রি করবেনা বলে সমিতির নিকট লিখিত দেয় এবং বিরিয়ানির দোকানদাররা আর কখনো এই গোস্তো কিনবেনা তারা ও সমিতির নিকট লিখিত দেয়, কিন্তু তাদের গোপনে চলতো এই গোস্তো আদান-প্রদানের ব্যবসা, অনেক সস্তায় পায় হাড্ডি ছারা এই গোস্তো, তাই আপনাদে এবং প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি, অনেক জায়গায় র ্যাবের হাতেও আটক হইছে এই গোস্তো।

ফতুল্লা  মডেল  থানার  ভারপ্রাপ্ত  কর্মকর্তা  (ওসি)  আসলাম  হোসেন  বলেন,জব্দকৃত মাংস ল্যাবে পাঠানো হয়েছে লেপ থেকেএখনো কনো রিপট আসেনি বলে জানান ।

 

নারায়ণগঞ্জ কথা এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

Shares
error: Alert: Content is protected !!