কুতুবপুর উত্তর রসুলপুর এলাকায় তুচ্ছ ঘটনা কেন্দ্র করে এক মহিলাকে পিটিয়ে জখন

নারায়ণগঞ্জ কথা : নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার কুতুবপুরের উত্তর রসুলপুর এলাকায় তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে মোসাম্মৎ আক্তার বিউটি সহ তার দুই ছেলেকে কে পিটিয়ে আহত করে কতিপয় স্থানীয় কিছু সন্ত্রাসীরা।

এ বিষয়ে আহত মোছাম্মদ জহুরা আক্তার বিউটি জানান এর আগেও কয়েক দফা বিভিন্নভাবে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ঝগরা করে আসছিল সে সকল সন্ত্রাসীরা। পরবর্তীতে ১৫/৮/২০ তারিখে ফতুল্লা থানা একটি অভিযোগ করি।

এমতাবস্থায় ১৬/ ৮ /২০ তারিখ আনুমানিক বিকাল ৫ টা ৩০ বিবাদী ১ নিজাম( ৪০) ২ নজরুল ৩ বিলকিস বেগম ৪ অনিক সহ এই সকল সন্ত্রাসীরা আমার বাড়ির সামনে চলাচলের রাস্তার উপর দিয়া বৈদ্যুতিক তারের বিষয় নিয়ে আমার বাসার গেটের সামনে আমি সহ আমার ছোট ছেলে মমিন ১২ অকথ্য ভাষায় গালমন্দ করিলে নিষেধ করলে বিবাদীগনেরা আমাদের উপর আরো ক্ষিপ্ত হতে থাকে পরবর্তীতে আমি ও আমার বড় ছেলে আলভী(১৪) তাদেরকে অনুরোধ করি গালমন্দ করিয়েন না।

তাৎক্ষণিকভাবে সন্ত্রাসীরা আমার ও আমার ছেলেদের উপর ক্ষিপ্ত হয়ে লাঠিসোটা নিয়ে এলোপাথাড়ি শরীরের পেটাতে থাকে আমার ছোট ছেলে মাহিমের শরীরের বিভিন্ন স্থানে পেটাতে থাকে এবং ঠোট কেটে যায় পরবর্তীতে বড় ছেলেকে হত্যার উদ্দেশ্যে পেটাতে থাকে তখন আমি বাধা দিলে আমাকেও এলোপাথাড়ি পিটায় এবং মাথা ফাটিয়ে দেয়।

এ সময় বিবাদী ১ ও ৪ নং আমার গলায় থাকা এক ভরি স্বর্ণের চেইন যার আনুমানিক মূল্য ৬০ হাজার টাকা এবং কানের দুল ছিনিয়ে নিয়ে যায়। তখন আমার ডাক চিৎকারে এলাকার আশেপাশের লোক এগিয়ে আসে আমাদের রক্ষা করে।

স্থানীয় লোকজন আমাদের রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করিয়া নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল নিয়ে চিকিৎসা করে এবং চিকিৎসা করা কিছুটা সুস্থ হয়ে থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছে। প্রশাসনের কাছে আমার একটাই দাবি অচিরেই সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার করা হোক আমি আমার পরিবার নিয়ে আতঙ্কে দিন পার করছি।

Shares