মঙ্গলবার, ডিসেম্বর ১, ২০২০

নারায়ণগঞ্জে ভূয়া বিগ্রেডিয়ার জেনারেল গ্রেফতার

 

নারায়ণগঞ্জ কথা : প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে গিয়ে পুলিশ সুপারকে ফোন দিলেন সেনাবাহিনীর বিগ্রেডিয়ার জেনারেল পরিচয়ে। কিন্তু বিধিবাম নিজেই ফেঁসে গেলেন। অতপরঃ প্রতারনার দায়ে গ্রেফতার হলেন সেই শরীফুল ইসলাম শরীফ (৬১) ।

সোমবার (৩ আগস্ট) তাকে গ্রেফতার করে নারায়ণঞ্জের গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের একটি দল। এ সময় প্রতারনার কাজে ব্যবহৃত কিছু সামগ্রীও উদ্ধার করা হয় তার বাসায় তল্লাশি চালিয়ে।

বুধবার (৫ আগস্ট) বিকেলে জেলা পুলিশের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তি থেকে এ তথ্য জানা যায়। বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, শরীফুল ইসলাম শরীফ মুন্সীগঞ্জের সদর উপজেলার দেওভোগ ৫নং ওয়ার্ডের মৃত কালু সরকারের ছেলে। ১৯৮১ সালে সেনাবাহিনীর সিপাহী পদে যোগ দেয়। পরে সেনাবাহিনী থেকে পালিয়ে এসে একটি ব্যাংকে চাকুরী নেয়।

এসএসসি পাশ শরীফুল ২০০১ সালে ব্যাংকের চাকুরী থেকে অবসর নেয়। বর্তমানে সে ডেমরার ডগাইর নুতনপাড়া ভুইয়া মসজিদ এলাকায় বসবাস করে।পার্শ্ববর্তী রাসেল ভুঁইয়ার সাথে তার বিরোধ ছিল। রাসেল ভুঁইয়াকে ফাঁসাতে গত ৩ আগস্ট নারায়ণগঞ্জের পুলিশ সুপারের সরকারি ফোনে নিজেকে সেনাবাহিনীর বিগ্রেডিয়ার জেনারেল সাইফুল ইসলাম পরিচয় দিয়ে জানায় সোনারগাঁয়ের কাঁচপুরে সিনহা গার্মেন্টসের মালিক তার স্ত্রী। রাসেল ভুঁইয়া নামের এক ব্যক্তি তার স্ত্রীর গার্মেন্টসে চাঁদা দাবী করে বিভিন্ন হুমকী দিয়ে আসছে। গনভবন থেকে ডিজিএফআই এর মেজর কামরুল পরিচয়েও ব্রিগেডিয়ার জেনারেল সাইফুল ইসলামের বিষয়টি দেখার জন্য ডিবি (পশ্চিম) এর ওসিকে ফোন দেয়া হয়।

এই সংবাদের ভিত্তিতে ওসি (ডিবি পশ্চিম) এস এম আলমগীর হােসেনের নেতৃত্বে ঘটনার সত্যতা যাচাইকালে তার কথাবার্তা সন্দেহজনক হওয়ায় ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদের মুখে শরীফুল তার প্রকৃত পরিচয় প্রকাশ করে এবং রাসেল ভুঁইয়াকে ফাঁসাতে এই কাজ করে বলে স্বীকার করে।

পরবর্তীতে তার তথ্যের ভিত্তিতে তার বাসা থেকে ৪ আগস্ট সন্ধ্যায় মো. সাইফুল ইসলাম ( পিএসসি এন্ড ডিসি) বিগ্রেডিয়ার জেনারেল, সেনা সদর, ঢাকা, বিএ- ৫০২২. (আর্মি), মো. সোহরাব পীর চেয়ারম্যান, ১০নং বাংলাবাজার ইউনিয়ন, মুন্সিগঞ্জ সদর, মুন্সিগঞ্জ- ১৫০০, মো. সোহরাব পীর, ১০ নং বাংলাবাজার ইউনিয়ন, মুন্সিগঞ্জ সদর, মুন্সিগঞ্জ-১৫০০, শরীফুল ইসলাম (শরীফ), সাংগঠনিক সম্পাদক, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, মুন্সিগঞ্জ লেখা ৪টি প্লাষ্টিকের সীল উদ্ধ্বার করা হয়। একটি ক্রেষ্টে এ্যাডভোকেট শরীফুল ইসলাম শরীফ লেখা থাকলেও বার সনদ দেখাতে পারেননি শরীফুল।এই বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন বলে জানানো হয়।

 

নারায়ণগঞ্জ কথা এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

Shares
error: Alert: Content is protected !!