বুধবার, নভেম্বর ২৫, ২০২০

ডিসি অফিস থানা ঘোরও করার হুমকি হকার সংগ্রাম পরিষদ

 

নারায়ণগঞ্জ কথা : নারায়নগঞ্জে বঙ্গবন্ধু সড়ককে ফুটপাত মুক্ত করতে মাঠে নেমেছে নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসন। কিছুদিন যাবৎ নিয়মিতভাবে বঙ্গবন্ধু সড়কে হকার উচ্ছেদ করা হচ্ছে। যার কারনে আবারও মাঠে নেমেছে বঙ্গবন্ধু সড়কের হকাররা। হকার উচ্ছেদের প্রতিবাদে মানববন্ধন মিছিল করেছে জেলা হকার্স সংগ্রাম পরিষদ। আর তাদের সাথে যুক্ত হয়েছেন সেই শ্রমিক নেতা ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্রের কেন্দ্রীয় সদস্য হাফিজুল ইসলাম। এবারও তাদের দাবী একই। পূর্নবাসন ছাড়া হকার উচ্ছেদ করা চলবে না। প্রয়োজনে জেলা প্রশাসক (ডিসি) কার্যালয় ঘেরাও’র কর্মসূচীরও ঘোষাণা করেন। নারায়ণগঞ্জ জেলা হকার্স সংগ্রাম পরিষদের সভাপতি রহিম মুন্সির সভাপতিত্বে

রবিবার (৫ জুলাই) সকাল ১১ টায় নারায়ণগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সামনে হকার উচ্ছেদের প্রতিবাদে মানববন্ধন মিছিল করেছে জেলা হকার্স সংগ্রাম পরিষদ।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, মেয়র আইভী আমাদেরকে নানারকম আশা দিয়েও আমাদেরকে কোন সহযোগিতা করেননি। গত ১২ বছরে এই মার্কেট থেকে কয়েক কোটি টাকা নিয়েছেন, কিন্তু মার্কেটের কোন উন্নয়ন হয়নি। এমনকি মার্কেটের ভিতরে টয়লেটের ব্যবস্থাও নেই। যা কিছু হয়েছে সবকিছু মার্কেটের দোকানদারগণ সম্মিলিত ভাবে করেছে। তিনি শুধু আমাদেরকে নির্যাতনই করেছেন। করোনার এই সংকটকালীন সময়ে তার কাছ থেকে আমরা কোন সহযোগিতা পাইনি। যেকোন দল হোক অথবা ডিসি, এসপি যেই হোক ক্ষমতায় এসেই সর্বপ্রথম হকার উচ্ছেদ করেন। কেনো, হকাররা কি মানুষ নয়। তারা বদলী হন কিন্তু হকাররা ঠিকই থেকে যায় নারায়নগঞ্জে। করোনার কারনে হকাররা কষ্টে জীবন যাপন করে। পরিবার বাচাঁতে রাস্তায় বসতে বাধ্য হচ্ছে তারা।

নারায়ণগঞ্জ জেলা হকার্স সংগ্রাম পরিষদের সভাপতি রহিম মুন্সি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০ লক্ষ রোহিঙ্গাকে দেশে আশ্রয় দিয়েছেন, তাদের খাবারের ব্যবস্থা করেছেন, তাহলে কেনো আমাদের ব্যবস্থা করবেন না ? এখন পরিস্থতি এমন হয়েছে গেছে যে, জীবন-জীবিকার পরিবর্তে আমাদেরকে আন্দোলন করতে হচ্ছে। জেলা প্রশাসকের নিকট হকারদের নামের তালিকা দিলে মেয়রের কথা বলেন কিন্তু মেয়র আমাদের জন্য কোন ব্যবস্থা গ্রহন করেন নি। তাই কোন হকারকে উচ্ছেদের পূর্বে তাকে পূর্নবাসন করতে হবে। কোন অন্যায় নির্দেশ আমরা মানবনা। কোন ঘোষনা না দিয়ে নারায়ণগঞ্জে হকার উচ্ছেদ করা চলবেনা। অবিলম্বে হকার পূর্নবাসন না করে কোন হকার উচ্ছেদ না করতে প্রশাসনের প্রতি জোর দাবী জানান তারা।

এ সময় হকার নেতৃবৃন্দ তাদের ৫ দফা দাবী তুলে ধরেন এবং আগামী বুধবার পর্যন্ত সময় বেঁধে দেন। যদি এই সময়ের মধ্যে তাদের দাবী মেনে না নেয়, তাহলে জেলা প্রশাসকের কার্যালয় ঘেরাও করা হবে বলে জানান নেতৃবৃন্দ।

মানববন্ধন কর্মসূচীতে বক্তব্য রাখেন, হকার্স সংগ্রাম পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক জসিম উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক সেকান্দর হায়াত, ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্রের কেন্দ্রীয় সদস্য শ্রমিক নেতা হাফিজুল ইসলাম, নারায়ণগঞ্জ জেলা হকার্স সংগ্রাম পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মোঃ আসাদ প্রমুখ।

 

নারায়ণগঞ্জ কথা এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

Shares
error: Alert: Content is protected !!