বুধবার, ডিসেম্বর ২, ২০২০

চাষাড়া সোনালী ব্যাংকে মানা হচ্ছে না স্বাস্থ্য বিধি, ভোগান্তিতে পড়েছে বয়স্ক ভাতার গ্রাহকরা

 

নারায়ণগঞ্জ কথা ‌‌: নারায়ণগঞ্জের চাষাড়ায় অবস্থিত সোনালী ব্যাংকে মানা হচ্ছে না স্বাস্থ্য বিধি,নেই কোন জিবানুনাশক স্প্রে।লোকবল না থাকায় ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে ব্যাংক গ্রাহকদের।

বৃহস্পতিবার (২৫ জুন) ১২টায় চাষাড়াস্থ সোনালী ব্যাংকে সরকার প্রদত্ত বয়স্ক ভাতা নিতে আসা শতাধিক বয়স্ক নারী পুরুষ পড়েন ভোগান্তিতে। এর মধ্যে প্রচন্ড রোদ্রে অসুস্থও হয়ে পড়েন অনেকে। বয়স্ক ভাতাধারীদের ব্যাংকের ভিতরে ভাতার কার্ড না দিয়ে বাহিরে প্রচন্ড রোদ্রের মধ্যে শতাধীক বয়স্ক নারী পুরুষদের কার্ড প্রদান করছে ব্যাংকের একজন কর্মচারী। এমনকি তারা কোন হ্যান্ড মাইকও ব্যবহার করছেনা।

এ বিষয়ে ব্যাংকের এসিস্টেন্ট জেনারেল ম্যানেজারের সাথে কথা বলতে ব্যাংকে প্রবেশ করলে দেখা মিলে ভিন্ন চিত্র।

শুধু বাহিরে নয় ব্যাংকের ভিতরেও দেখা গেছে গ্রাহকদের ঝটলা,নেই কোন স্বাস্থ্য বিধি। ইচ্ছে মতো প্রবেশ ও বের হতে পারছেন সকলেই। এ বিষয়ে ব্যাংকের এসিস্টেন্ট জেনারেল ম্যানেজার পরিতোষ চন্দ্র দের কে প্রবেশ করতেই দেখা যায়, তিনি মোবাইল ফোনে ফেসবুক নিয়ে ব্যস্ত আছেন। এ ব্যাপারে সোনালী ব্যাংক চাষাড়া ব্রাঞ্চ এর এসিস্টেন্ট জেনারেল ম্যানেজার পরিতোষ চন্দ্র দে বললেন উল্টো কথা।

তিনি জানান, আমরা আমাদের সর্বোচ্চ চেষ্টা করছি। গ্রাহকরা যাতে পরিপূর্ণ সেবা পায় সেজন্য কর্মকর্তা কর্মচারীরা তাদের সবটুকু দিয়ে কাজ করে চলেছেন। এছাড়াও বয়স্ক ভাতা যারা নিতে আসছে তাদের জন্য আলাদা কাউন্টার করে দেয়া হয়েছে। বেশ কিছু টেবিলে কোন কর্মকর্তা নেই কেনো ?

এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, অনেক কর্মকর্তাই কাজ করতে গিয়ে অসুস্থ্য হয়ে পড়েছে এবং কেউ মাতৃত্বকালীন ছুটিতে রয়েছে। তবে আমরা চেষ্টা করছি যারা বয়স্ক ভাতা নিতে আসছে তাদের কাজ গুলে দ্রুত শেষ করতে।

তবে সেবা নিতে আসা গ্রাহকরা জানান, এখানে যারা কাজ করেন তারা বেশির ভাগই আস্তেধীরে কাজ করেন যার ফলে লম্বা লাইনের সৃষ্টি হয়।

(নিউজ ডেস্ক)

 

নারায়ণগঞ্জ কথা এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

Shares
error: Alert: Content is protected !!