শুক্রবার, সেপ্টেম্বর ১৮, ২০২০

নির্মমভাবে আমার স্বামীকে হত্যা করে- নিহতের স্ত্রী

 

নিজস্ব প্রতিবেদক : বক্তাবলীর ওয়েল ফেয়ার ট্রাস্ট, সামাজিক সংগঠন এর উদ্যোগে ঝুট ব্যবসায়ী সেলিম চৌধুরীর খুনিদের ফাঁসির দাবীতে মানব বন্ধন কর্মসূচিতে নিহতের ব্যবসায়ীর স্ত্রী রেহেনা আক্তার রেখা বলেন, ব্যবসায়ী সেলিম চৌধুরীকে যারা নির্মমভাবে হত্যা করেছে সেই খুনিরা যাতে কিছুতেই পার না পায়। সেলিমের খুনিরা যদি কোনোভাবে পার পেয়ে যায় তাহলে আমার একমাত্র ছেলে সন্তানকে নিয়ে নারায়ণগঞ্জের চাষাঢ়া শহীদ মিনারে আত্মহত্যা করব। আমার স্বামীর হত্যাকারী মোহাম্মদ আলীসহ তার সাঙ্গপাঙ্গদের ফাঁসি চাই।

শনিবার (১৩ এপ্রিল) সকালে নারায়ণগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সামনে বক্তাবলী সংগঠন ওয়েল ফেয়ার ট্রাস্ট এ মানববন্ধনের আয়োজন করে।

তিনি আরও বলেন, আমার স্বামী মোহাম্মদ আলীকে দুই লাখ টাকা ধার দিয়ে কী অপরাধ করেছিল? যার কারণে সেই টাকা আত্মসাৎ করতে মোহাম্মদ আলী তার সহযোগিদের নিয়ে নির্মমভাবে তাকে হত্যা করলো। আমার স্বামী একজন সহজ সরল ব্যক্তি ছিলেন। কারও সঙ্গে উচ্চস্বরে কথা বলেননি। এমনকি কারও সঙ্গে ঝগড়া করেননি। আমি চাই খুনি মোহাম্মদ আলী গংরা যাতে কিছুতেই বের হতে না পারে সেজন্য নারায়ণগঞ্জের প্রশাসনের প্রতি আমার বিশেষ অনুরোধ থাকবে।

মানব বন্ধনে উপস্থিত ছলেন, বক্তাবলীর সামাজিক সংগঠন আলোকিত বক্তাবলী, এবি ফ্রেন্ড অ্যাসোসিয়েশন, অগ্রযাত্রার নেতৃবৃন্দ। বক্তাবলী ওয়েল ফেয়ার ট্রাস্টের সভাপতি আলামিন ইকবালের সভাপতিত্বে মানববন্ধন আরও বক্তব্য দেন সাংবাদিক জামাল উদ্দিন বারী, নারায়ণগঞ্জ কলেজের সাবেক ভিপি আলমগীর হোসেন, স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা খোরশেদ মাস্টার, বক্তাবলী ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য রাসেল চৌধুরী, আলোকিত বক্তাবলীর সভাপতি নাজির হোসেন, ওয়েল ফেয়ার ট্রাস্টের সাধারণ সম্পাদক মতিউর রহমান ফকির, অগ্রযাত্রার সভাপতি বাদল হোসেন ববি, নিহত সেলিম চৌধুরীর মা মমতাজ বেগম, ছেলে রিতুল চৌধুরী ,নাজির আহমেদ, পলাশ প্রমুখ।

 

নারায়ণগঞ্জ কথা এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

Shares
error: Alert: Content is protected !!