মঙ্গলবার, নভেম্বর ২৪, ২০২০

৭,৮,৯নং ওর্য়াডের কাউন্সিলর আয়শা আক্তার দিনাকে প্রাণনাশের হুমকি

 

সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি : সিদ্ধিরগঞ্জে বাসা ভাড়া নিয়ে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে কিছু নামধারী ছাত্রলীগ নেতা নাসিক ৭,৮,৯নং ওর্য়াডের কাউন্সিলর ও নারায়ণগঞ্জ মহিলা দলের সিনিয়র যুগ্ন আহ্বায়ক আয়শা আক্তার দিনাকে শ্লীতহানিতা ও মারপিট করেছে এমন একটি অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় কাউন্সিলর দিনা আপন খালা রাশিদা বেগম, রুবেল,রাকিব,অনিক,নাজমুল,বিজুসহ অঙ্গাতনামা আরও ২৫/২৬ জনকে আসামি করে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

সোমবার (১৫ জুন) রাতে সিদ্ধিরগঞ্জের তাঁতখানা এলাকায় অবস্থিত তার কার্যালয়ে এ হামলা করা হয়।

অভিযোগ থেকে জানা যায়,বাসা ভাড়া নিয়ে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে কিছু নামধারী ছাত্রলীগ নেতা ১৫ জুন রাত ঘটিকার সময় কাউন্সিলর দিনাকে অর্তকিত হামলা চালায়। অভিযোগ থেকে আরও জানা যায়,কাউন্সিলর দিনা সরকার কতৃক ত্রান সেচ্ছাসেবকদের নিয়ে বিতরণ করার প্রস্তুতি নিচ্ছিল।

এমন সময় ১ নং বিবাদী রাশেদা বেগমের হুকুমে উল্লেখিত সকল আসামি কাউন্সিলর দিনারঅফিসে আসিয়া গালাগালি করতে থাকে। ওই সময় দিনা তাহাদের কথার প্রতিবাদ করলে উক্ত ৩ নং বিবাদী চুলের মুঠি ধড়িয়া ও কাপড় টানা হেচড়া করিয়া দিনাকে শ্লীতহানিতা করার চেষ্টা করে।

এছাড়া ৪,৫,৬ নং বিবাদী দিনার স্বামী সায়েমকে ও ভাই দিপুকে কিল ঘুষি মারিয়া নিলা জখম করে।উক্ত ৪,৫,৬ নং বিবাদী দিনার অফিসে ডুকে প্রায় সাড়ে ৩ লাখ টাকার মালামাল নিয়া যায়। কাউন্সিলর দিনা জানান,রাশেদা বেগম আমার আপন খালা হয়।

৮ নং ওর্য়াডে বৌবাজারে তাদের নিজ বাড়ি ভাড়া দিয়া দীর্ঘদিন যাবৎ মেয়ের জামাই বাড়িতে থাকে আমার খালা।জনৈক জামান আমার খালা রাশিদা বেগমের বাসায় দুই বছরের চুক্তিতে ভাড়া নিয়া বসবাস করে আসতেছে।করোনা ভাইরাসে লকডাউনে থাকায় ৩ মাসের ঘড় ভাড়া দিতে পারে নাই।

আমার খালাত ভাই রুবেল ভাড়াটিয়া আমানকে বিভিন্ন সময় বাসা ভাড়া দেওয়ার জন্য ও বাড়ি ছেরে দেওয়ার জন্য হুমকি দিয়ে থাকতো।ভাড়াটিয়া আমান ১৩ জুন রাত ৮ টায় আমার অফিসে আসিয়া আমার কাছে বিষয়টি জানায়।উক্ত ২ নং বিবাদী ১৫ তারিখ রাত সাড়ে ৯ টায় কিছু বহিরাগত ছেলেদেরকে নিয়া ভাড়াটিয়া আমানকে বাসা ভাড়া ও বাসা ছেড়ে দেওয়ার জন্য হুমকি প্রদান করিলে আমি সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় এবং বুজিয়ে আমার অফিসে আসি।

অফিসে এসে সরকারি ত্রান দেওয়ার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছিলাম এমন সময় ১ নং বিবাদির হুকুমে উল্লেখিত সকল বিবাদী আমার অফিসে আসিয়া আমার উপর হামলা চালায় এবং আমার স্বামী ও ভাইকে কিল ঘুশি মারিয়া নিলা জখম করে।আমার ডাক চিংকারে আশেপাশের লোকজন আগাইয়া আসিলে উল্লেখিত বিবাদী আমার পরিবারকে প্রানে মারিয়া ফেলার হুমকি দেয় এবং আমার সেচ্ছাসেবক দলের সবাইকে বড় ধরনের ক্ষতি করবে বলে জানায়।

আমি সরকারের কাছে ও নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সাংসদ শামিম ওসমানের কাছে এ ঘটনার সুষ্ঠ বিচার দাবি করি। সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ওসি কামরুল ফারুক সকাল নারায়ণগঞ্জকে জানান, কাউন্সিলর দিনার উপর হামলার ঘটনায় রাত ২টার দিকে একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

 

নারায়ণগঞ্জ কথা এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

Shares
error: Alert: Content is protected !!