বুধবার, নভেম্বর ২৫, ২০২০

ভুয়া কবিরাজি চিকিৎসা নামে মানসিক প্রতিবন্ধি ২২ বয়স যুবতি মেয়েকে ধর্ষণ

 

স্টাফ রিপোর্টার : কবিরাজি চিকিৎসা নামে মানসিক প্রতিবন্ধি ২২ বয়স যুবতি  মেয়েকে ধর্ষনের ঘটনায় আঃ রহিম প্রামানিক(৫৮)  নামক এক ভন্ড কবিরাজ কে আটক করেছে ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশ।

বুধবার (২৭ মে) রাত ১০ টায় ফতুল্লা থানার কাশিপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে ।

উল্লেখিত যে, আব্দুর রহিম প্রামণিক (৫৮) কবিরাজি চিকিৎসা করতো  তার গ্রামের বাড়ি সিরাজগঞ্জ কিন্তু তিনি  ভাড়া থাকতো নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ফতুল্লার কাশিপুর হাজীপাড়া এলাকায়। তিনি মানসিক প্রতিবন্ধি যুবতি  মেয়েটির বাবার  বন্ধু  সুবাদে মানসিক প্রতিবন্ধি মেয়েটির বাবা  সর্ব সময় দুস চিন্তায় থাকতো তার পরিবার।ভুয়া কবিরাজ আব্দুর রহিমর কাছে মেয়েটির অসুস্থতার কথা জানায় সব শুনে ভালো চিকিৎসার আশ্বাস দেয়  ভুয়া কবিরাজ আব্দুর রহিম

এর পর বুধবার ওই ভুয়া কবিরাজ যুবতির বাবার সাথে তাদের বাড়িতে যায় । সন্ধ্যার পর থেকেই শুরু হয় নানা ঝাড় ফু’। রাত ৯টার দিকে ওই যুবতিকে তার বাবার শয়নকক্ষে নেয়া হয়। পরে ঘর থেকে সবাইকে বের করে দেয় কবিরাজ। এরপর দরজা জানালা বন্ধ করে দেয়।ওই যুবতির ভাইয়ের সন্দেহ হয় যুবতির ভাই ঘরের জানালার ফাঁকা অংশ দিয়ে তাকিয়ে দেখে ভুয়া কবিরাজ উলঙ্গ  হয়ে তার বোন কে ধর্ষণ করছে । সে চিৎকার করলে সবাই বিষয়টি বুঝতে পারে। টের পেয়ে দরজা খুলেই দৌড়ে পালিয়ে যায় কবিরাজ রহিম প্রামণিক। খবর পেয়ে ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশের একটি টিম গিয়ে রহিম প্রামণিককে গ্রেপ্তার করে।

এ বিষয়ে ফতুল্লা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আসলাম হোসেন সাংবাদিকদের জানান, মানসিক প্রতিবন্ধি মেয়েকে চিকিৎসার কথা বলে  তাকে এক ভন্ড কবিরাজ নিজ বাবার কক্ষেই মেয়েটিকে ধর্ষন করছে।ধর্ষনের অভিযোগে ভন্ড কবিরাজ কে  গ্রেফতার করা হয়েছে ।মেয়েটির পিতা বাদী হয়ে ফতুল্লা মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন  ।

 

নারায়ণগঞ্জ কথা এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

Shares
error: Alert: Content is protected !!