যৌতুকের ৫০হাজার টাকা জন্য গৃহবধূ নাসিমাকে মারধর করে ৩ মাসের বাচ্চা সহ বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেয় লম্পট আউয়াল হোসেন রাকিব

স্টাফ রিপোর্টার : নারায়ণগঞ্জ জেলার ফতুল্লা  থানাধীন সংলগ্ন বাসিন্দা যৌতুক লোভী ও পরকিয়া লম্পট জামালপুরের নুর মোহাম্মদ এর পুএ আউয়াল হোসেন রাকিব এর সাথে সিদ্বিরগঞ্জ থানাধীন হাজীগঞ্জ এলাকার বাসিন্দা নওশর মিয়ার কন্যা নাসিমার সাথে শরিয়ত মতে রেজিষ্টার কাবিন মূলে গত ১৬মাস আগে বিবাহ হয়। বিবাহের পর সুখেই ছিল তাদের দম্পতি জীবন তাদের একটি  পুএ সন্তানের জন্ম হয়। বয়স মাএ ৩ মাস। সন্তান জন্ম হওয়ার পরে থেকে  লম্পট আউয়াল হোসেন রাকিব পরকিয়া ধরা পড়ে তার পর থেকে এ নিয়ে কথা কাটাকাটি হয় স্রী  গৃহবধূ  নাসিমার কাছে পেরায় সময় লম্পট আউয়াল হোসেন রাকিব  ৫০হাজার টাকা যৌতুকের দাবি করে ও নাসিমাকে মারধর করে।

গত শুক্রবার ( ৮ মে) লম্পর আউয়াল ওরফে রাকিব তার নিজের বাসস্হান তল্লয়ে নাসিমাকে এলোপাথাড়ি মারধর করে ও  শিশু সন্তান সহ অসহায় গৃহবধূ নাসিমাকে তাড়িয়ে দেয়। নাসিমা শিশু বাচ্চা নিয়ে নিজের পিত্রার বাসায়  গিয়ে আশ্রয় নেয়। এর মাঝে কয়েকবার ফোনে  যৌতুক লোভী লম্পট জামালপুরের আউয়াল হোসেন ওরফে রাকিব নাসিমাকে যৌতুকের টাকা নিয়ে বাসায় আসতে বললে, নাসিমা তার গরিব পিতা মাতা দাবীকৃত যৌতুকের টাকা দিতে পারবে না বলে জানায়, আউয়াল নাসিমাকে হুমকি দিয়ে বলে যৌতুকের টাকা না নিয়ে আমার বাসায় আসবিনা। আরও বলে আমি তোর কাবিনের টাকা দিয়ে আমার প্রেমিকা সোনিয়াকে বিয়ে করবো।

এ বিষয় অসহায় গৃহবধূ নাসিমার পরিবার সাংবাদিককে বলেন, আমরা নারী ও শিশু নির্যাতন মামলার প্রস্তুতি  নিচ্ছি । %

Shares