করোনা উপসর্গের কারণে ভর্তি নেয়নি কোন হাসপাতালছেলের মৃত্যু শুনে বাবারও মৃত্যু

সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি : নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে করোনা উপসর্গে রিমন সাউদ (২৪) নামে ছেলের মৃত্যুর খবর শুনে ১ঘন্টা পর হার্ট এটাকে বাবা হাজী ইয়ার হোসেনও (৬০) মৃত্যুকোলে ঢলে পড়েছেন। সিদ্ধিরগঞ্জ থানাধীন নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের ৫নং
ওয়ার্ডস্থ সরদারপাড়া (আজীবপুর) এলাকায় মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে।

এ ঘটনায় ঐ এলাকার রাস্তায় বাঁশ দিয়ে সকল ধরনের যান চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে
স্থানীয়রা। জ্বর, কাশি ও শ্বাসকষ্ট থাকায় নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এখনও তাদের
রিপোর্ট আসেনি বলে পরিবার সূত্রে জানা গেছে। 

মৃত রিমনের চাচাতো ভাই মাসুম সাউদ ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, আমাদের দেশে কোন চিকিৎসা ব্যবস্থা নেই। ভোর রাত ৩টার দিকে অসুস্থ্যবোধ করলে আমার চাচাতো ভাই রিমন সাউদ নিজ বাড়ীর ২য় তলা থেকে পায়ে হেটে গাড়িতে উঠে।

পরে ঢাকার বিভিন্ন হাসাপাতলে নিয়ে যাই কিন্তু করোনার উপসর্গ জ্বর, কাশি ও শ্বাসকষ্ট থাকার কারণে কোন হাসপাতালে ভর্তি নেয় নাই। পরে আমরা ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে ভোর ৬ টার দিকে সেখানেই তার মৃত্যু হয়। এদিকে ছেলে মৃত্যুর শোক সইতে না পেরে হার্ট এটাক করেন বাবা হাজী ইয়ার হোসেন। বাবাকেও ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে ভোর ৭টার দিকে মৃত্যুবরণ করেন। হাজী ইয়ার হোসেন সিদ্ধিরগঞ্জের সরদারপাড়া মসজিদ কমিটির সভাপতি ছিলেন।

Shares