বিশ্বের বিভিন্ন দেশে নানা আয়োজনে পালিত হবে : মা দিবস

 

নারায়ণগঞ্জ কথা : ‘মা’ সে তো অনন্ত বিশ্বস্ততার জায়গা।  মার তুলনা ‘মা’ নিজেই। মার কোনো তুলনা হয় না। পৃথিবীর সবচেয়ে মধুর শব্দ ‘মা’। ভালোবাসার সবচে বড় শব্দ ’মা’। তাঁর স্নেহধারায় স্নাত হয়ে ভবিষ্যতের পথে এগিয়ে যায় সন্তানরা। মায়ের দোয়া  সন্তানকে কঠিন পথ পাড়ি দিতে সাহায্য করে। মার ভালোবাসা শাশ্বত  চিরন্তন। 

মায়ের প্রতি সম্মান দেখাতেই  রবিবার (১০ মে) বিশ্বের বিভিন্ন দেশে নানা আয়োজনে পালিত হবে ‘মা দিবস’। বাংলাদেশেও ঘরে ঘরে নানা আয়োজনে দিবসটি পালন করা হয়। বাঙালি সন্তানদের হৃদয়ে দিবসটি  ১০ মে রবিবার  উৎসবে পরিণত হয়। হাজার কষ্ট করে তিলে তিলে যে সন্তানকে বড় করে তুলেছেন একজন মা তাকে ঘিরেই আজ ১০ মে রবিবার  চলবে ব্যতিক্রমী উৎসব উদযাপন।  ১০ মে রবিবার  দিনে একটি ফুল অথবা একটি কার্ড নিয়ে শুভেচ্ছা জানালে মা যেন তাতেই খুশি। মার চাহিদা তো এতটুকুই…! 

মা দিবসের উৎপত্তি :  ’মা’কে কেন্দ্র করে বিভিন্ন ও নানা উৎসবমুখর অনুষ্ঠান উদযাপন করা হয় । মা দিবসের আদি উৎপত্তি প্রাচীন গ্রিসে।

১৬শ’ শতাব্দীতে মা দিবস সামাজিক উৎসবে পরিণত হয়  সে সময় যুক্তরাষ্ট্রে মায়েদের প্রতি সম্মান জানিয়ে ’মাদারিং সানডে’ নামে একটি বিশেষ দিন উদযাপন করা হতো। প্রথম দিকে দিবসটি শুধু শহুরে বিত্তবানদের মধ্যেই সীমাবদ্ধ ছিল। কিন্তু পরে সাধারণ মানুষ;বিশেষত কাজের সন্ধানে শহরে ছুটে আসা মানুষের কাছেও পরিচিত হয়ে ওঠে মা দিবস। ফলে এ বিশেষ দিবসের আবেদন ছড়িয়ে পড়ে শহর ছেড়ে গ্রামে, সব জায়গায়।

বাংলাদেশে মা দিবস : আমেরিকাকে অনুসরণ করে গত প্রায় তিন দশক ধরে বাংলাদেশেও প্রতি বছর মে মাসের দ্বিতীয় রোববার নানা আয়োজনে মা দিবস পালন করা হয়। বাংলাদেশে এই বিশেষ দিনে মাকে শুভেচ্ছা জানানো এখন একটি সংস্কৃতিতে পরিণত হয়েছে।

 

নারায়ণগঞ্জ কথা এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

Shares