সোমবার, নভেম্বর ২৩, ২০২০

মাসুদ রানা নামের এক সাংবাদিককে খুঁজছে জেলা প্রশাসন

 

স্টাফ রিপোর্টার : কে এই সাংবাদিক ? কি তার পরিচয় ? কোন গনমাধ্যমে কাজ করেন তিনি ।যে কিনা বন্দরে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু বরণকারী নারীর সঙ্গে ছিলেন । তাকে প্রশাসন খুঁজে বের করে কোয়ারেন্টিন না দিলে সেই সাংবাদিক যদি করোনায় আক্রান্ত থাকেন তবে তার যোগাযোগকৃত অনেক আত্বীয়-পরিজন আক্রান্ত হওয়ার সম্বাবনা রয়েছে ।এদিকে একটি সুত্রে জানা যায় , বন্দরে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরন করা নারীর খুব ঘনিষ্ট আত্বীয় মাসুদ রানা নামের এক সাংবাদিককে খুঁজছে জেলা প্রশাসন ও স্বাস্থ্য বিভাগ । তবে সাংবাদিক মাসুদ কোথায় থাকেন এবং কোন গনমাধ্যমের সাথে জড়িত আছেন এ ব্যাপারে এখন পর্যন্ত বিস্তারিত কোন তথ্য পাওয়া যায়নি ।

উল্লেখ্য, গত (৩ এপ্রিল ) শুক্রবার ফেসবুকসহ একটি অনলাইন পোর্টালে বন্দরে করোনায় আক্রান্ত নারীর সঙ্গে ছিলেন এক সাংবাদিক এমন গুজব তথ্যের ভিত্তিতে গনমাধ্যমে ছড়িয়ে পরে বিভ্রান্তি । তথ্য আসে এই সাংবাদিক নাকি মাসুদ তালুকদার । বিষয়টি নিয়ে নিউজ নারায়ণগঞ্জ বিডি ডট কমে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয় ।পরবর্তিতে এই মিথ্যা সংবাদ প্রকাশিত অনলাইন নিউজ পোর্টালের সাংবাদিকরা এ ব্যাপারে সর্ম্পূন সত্যতা যাচাই করে জানতে পারেন করোনায় আক্রান্ত বন্দরের ঐ মহিলার সাথে ফটো সাংবাদিক মাসুদ তালুকদারের কোন যোগ সূত্র নেই ।পরে ঐ নিউজ চ্যানেলটি মিথ্যা , বানোয়াট ফেসবুক গুবজবের শিকার ফটো সাংবাদিক মাসুদ তালুকদারকে মুঠো ফোনে আন্তরিক দু:খ প্রকাশ করে নিউজ প্রকাশ করেন । নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক সাংবাদিক নারায়ণগঞ্জ বাংলা নিউজকে জানায় , কিছু হলুদ সাংবাদিকরা পেশাটাকে নাম মাত্র ব্যবহার করে নিজের ফায়দা হাসিলের জন্য অন্যকে ফাঁসানোর চেষ্টা করছে । এ সব মিথ্যা ,বানোয়াট , ফেসবুক গুজবের ভিত্তিতে অসত্য সংবাদ সংগ্রহ করে যেন কেউ সংবাদ প্রকাশ করতে না পারে এ ব্যাপারে প্রশাসনকে সব সময় তৎপর থাকতে হবে । ফেসবুকসহ গনমাধ্যমে কেউ যেন মিথ্যা সংবাদ কে সত্য বলে চালিয়ে দিতে না পারে এ ব্যাপারে প্রশাসনকে সব সময় সজাগ থাকার দাবি জানিয়েছেন বিশিষ্ট সাংবাদিকবৃন্দ । কে এই সাংবাদিক ? কি তার পরিচয় ? কোন গনমাধ্যমে কাজ করেন তিনি ।যে কিনা বন্দরে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু বরণকারী নারীর সঙ্গে ছিলেন । তাকে প্রশাসন খুঁজে বের করে কোয়ারেন্টিন না দিলে সেই সাংবাদিক যদি করোনায় আক্রান্ত থাকেন তবে তার যোগাযোগকৃত অনেক আত্বীয়-পরিজন আক্রান্ত হওয়ার সম্বাবনা রয়েছে ।এদিকে একটি সুত্রে জানা যায় , বন্দরে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরন করা নারীর খুব ঘনিষ্ট আত্বীয় মাসুদ নামের এক সাংবাদিককে খুঁজছে জেলা প্রশাসন ও স্বাস্থ্য বিভাগ । তবে সাংবাদিক মাসুদ কোথায় থাকেন এবং কোন গনমাধ্যমের সাথে জড়িত আছেন এ ব্যাপারে এখন পর্যন্ত বিস্তারিত কোন তথ্য পাওয়া যায়নি । উল্লেখ্য, গত (৩ এপ্রিল ) শুক্রবার ফেসবুকসহ একটি অনলাইন পোর্টালে বন্দরে করোনায় আক্রান্ত নারীর সঙ্গে ছিলেন এক সাংবাদিক এমন গুজব তথ্যের ভিত্তিতে গনমাধ্যমে ছড়িয়ে পরে বিভ্রান্তি । তথ্য আসে এই সাংবাদিক নাকি মাসুদ তালুকদার । বিষয়টি নিয়ে নিউজ নারায়ণগঞ্জ বিডি ডট কমে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয় ।পরবর্তিতে এই মিথ্যা সংবাদ প্রকাশিত অনলাইন নিউজ পোর্টালের সাংবাদিকরা এ ব্যাপারে সর্ম্পূন সত্যতা যাচাই করে জানতে পারেন করোনায় আক্রান্ত বন্দরের ঐ মহিলার সাথে ফটো সাংবাদিক মাসুদ তালুকদারের কোন যোগ সূত্র নেই ।পরে ঐ নিউজ চ্যানেলটি মিথ্যা , বানোয়াট ফেসবুক গুবজবের শিকার ফটো সাংবাদিক মাসুদ তালুকদারকে মুঠো ফোনে আন্তরিক দু:খ প্রকাশ করে নিউজ প্রকাশ করেন । নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক সাংবাদিক নারায়ণগঞ্জ বাংলা নিউজকে জানায় , কিছু হলুদ সাংবাদিকরা পেশাটাকে নাম মাত্র ব্যবহার করে নিজের ফায়দা হাসিলের জন্য অন্যকে ফাঁসানোর চেষ্টা করছে । এ সব মিথ্যা ,বানোয়াট , ফেসবুক গুজবের ভিত্তিতে অসত্য সংবাদ সংগ্রহ করে যেন কেউ সংবাদ প্রকাশ করতে না পারে এ ব্যাপারে প্রশাসনকে সব সময় তৎপর থাকতে হবে । ফেসবুকসহ গনমাধ্যমে কেউ যেন মিথ্যা সংবাদ কে সত্য বলে চালিয়ে দিতে না পারে এ ব্যাপারে প্রশাসনকে সব সময় সজাগ থাকার দাবি জানিয়েছেন বিশিষ্ট সাংবাদিকবৃন্দ ।

 

নারায়ণগঞ্জ কথা এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

Shares
error: Alert: Content is protected !!