হকারকে মারধর করে এক পুলিশ হকারদের বঙ্গবন্ধু সড়কে অবরোধ

নারায়ণগঞ্জ কথা :  নারায়ণগঞ্জে ফুটপাত থেকে হকার উচ্ছেদের সময় দুই হকারকে মারধর করে এক পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠে । এ ঘটনাকে ক্রেন্দ করে হকারদের মধ্যে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়লে সমবায় মার্কেটের সামনে হকাররা বঙ্গবন্ধু সড়কে অবরোধ করেন।

সোমবার (৬ জানুয়ারি) সন্ধ্যা  ৬টায় নারায়ণগঞ্জ চাষাঢ়ায়তে সমবায় মার্কেটের সামনে হকাররা বঙ্গবন্ধু সড়কে অবরোধ করেন।

প্রত্যক্ষদর্শীসূত্রে জানা যায়, নিয়মিত টহলের অংশ হিসেবে পুলিশ সন্ধ্যায় সোনালী ব্যাংকের সামনে টহল দিতে আসলে হকারদের সরে যেতে বলা হয় । এ সময় পুলিশ কনস্টেবল রনি তালুকদার  মানিক নামের এক হকারকে গলা চেপে ধরে। পরবর্তীতে হকারের মালামাল সাজিয়ে রাখার জন্য ব্যবহৃত টেবিলটি ভেঙ্গে সেখান থেকে একটি পায়া খুলে নিয়ে সামনে এগিয়ে পলাশ নামের আরেক হকারকে সেটি দিয়ে মারধর করে সেই কনস্টেবল। এতে হকারদের মধ্যে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়লে তারা ‘আমার ভাইরে মারলো কেন? জবাব চাই, জবাব চাই’ ইত্যাদি স্লোগানে বঙ্গবন্ধু সড়ক অবরোধ করে রাখে।

পরে খবর পেয়ে সদর মডেল থানার পরিদর্শক (অপারেশন) আব্দুল হাই এসে হকারদের আশ্বস্ত করে বলেন, আপনারা রাস্তাটা ছেড়ে দেন। যে পুলিশ এ ঘটনা ঘটিয়েছে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

কিন্তু তারপরও হকাররা তাদের অবস্থানে অনড় থাকলে  হকার নেতা রহিম মুন্সী এসে হকারদের বলেন, স্যার বলছে ঐ পুলিশের সুষ্ঠু বিচার করবে। তোমরা সড়ক ছেড়ে দাও। পরবর্তীতে সদর মডেল থানার পরিদর্শক (অপারেশন) আব্দুল হাই ও হকার নেতা রহিম মুন্সী দুজন একসাথে এসে হকারদের আবার বোঝানোর পর পরিস্থিতি শান্ত হয়ে আসে। হকাররা সড়ক ছেড়ে দেয়। �������������������������������������������������������������������������������������������������������������������������������������������������������������������������������������������������������������������������������������������������������������������������������������������������������������������������������������������������������������������������������������������������������������������������������������2

Shares