শহীদ শেখ রাসেলের ৫৮ তম জন্মদিনে ১৩নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনের উদ্যোগে আলোচনা,দোয়া কেক কাটা

নারায়ণগঞ্জ কথা : ১৮ অক্টোবর জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর কনিষ্ঠ পুত্র শহীদ শেখ রাসেল এর ৫৮ তম শুভ জন্মদিন ও শেখ রাসেল দিবস উপলক্ষে নারায়ণগঞ্জ মহানগর ১৩নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনের উদ্যোগে আলোচনা, দোয়া ও কেক কাটা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

সোমবার  ( ১৮ অক্টোবর ) বাদ এশা  নারায়ণগঞ্জ ১৩নং ওয়ার্ড মাসদাইর আওয়ামীলীগের কার্যালয়ের সামনে এ আলোচনা, দোয়া ও কেক কাটা অনুষ্ঠিত হয়।

প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি এহসানুল হাসান নিপু ।

প্রধান অতিথি বক্তব্যে এহসানুল হাসান নিপু বলেন,প্রথমে আজ আমি এখানে যারা এত সুন্দর একটা আয়োজন করেছেন সকলকে ধন্যবাদ জানাই।আজ আমাদের জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কনিষ্ঠ পুত্র শহীদ শেখ রাসেল এর ৫৮ তম শুভ জন্মদিন ও শেখ রাসেল দিবস উপলক্ষে এখানে আমরা সবাই একত্র হয়েছি। আমি সকলের উদ্দেশ্যে একটা কথাই বলতে চাই, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশকে উন্নয়নের ধারাবাহিকতা যে কাজ হাতে নিয়েছেন। আপনারা এলাকার সকলে মিলে তার উন্নয়নের ধারাবাহিকতা এগিয়ে নিয়ে যাবেন। আমাদের নারায়ণগঞ্জে একটি ঐতিহ্য পরিবারের এর দুইজন আছেন যারা কিনা সর্বসময় মানুষের সেবায় কাজ করে যাচ্ছেন। একজন হলেন নারায়ণগঞ্জ ৪ আসনের সংসদ সদস্য একেএম শামীম ওসমান, ও আরেকজন হলেন নারায়ণগঞ্জ ৫ আসনের সংসদ সদস্য একেএম সেলিম ওসমান যার কথা না বললেই নয় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার তহবিল থেকে গরীব অসহায় মানুষের জন্য যা আসছে তা তো তিনি দিচ্ছেন, পাশাপাশি নিজ অর্থায়নে তিনি মানুষের জন্য কাজ করে যাচ্ছেন আপনারা সবাই তাদের জন্য দোয়া করবেন তারা যেন আগামীতে ও মানুষের জন্য কাজ করে যেতে পারেন।

এ সময় শেখ রাসেলের  বিদেহী আত্মার মাগফেরাত ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও তার পরিবারের সদস্যদের সু-স্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনা করে বিশেষ দোয়া  করা হয়।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন,প্রবীন নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা গোলাম মোস্তফা, হাজী শাহজাহান আহাম্মেদ প্রধান, হাজী মহিউদ্দিন আহাম্মেদ, ১৩নং ওয়ার্ড যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন।

নারায়ণগঞ্জ মহানগর ১৩নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জহিরুল আহসান এর সভাপতিত্বে ও সঞ্চালনায় নারায়ণগঞ্জ জেলার
বঙ্গবন্ধু সৈনিক লীগের সহ-সভাপতি আব্দুস সালাম খন্দকার সেলিম। 

সময় আরো উপস্থিত ছিলেন,যুবলীগ নেতা রাশেদুল হক রাসেল, ইমন আহমেদ মামুন, মো. মামুন, মো. আখি, আওয়ামীলীগ নেতা তাইজুদ্দিন জামাই, তোতা মিয়া, সিরাজ মিয়া, জেলা যুব সংহতির সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক মির্জা মনির, জেলা শ্রমিক লীগের সহ- সাংগঠনিক সম্পাদক তাজুল ইসলাম, স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা মো. রাকিব, বিপ্লব, সেলিম, টিটু, নয়ন, সুলতান, আসাদ খন্দকার শুভ, যুবলীগ নেতা নজরুল, ইউনুস, সালাউদ্দিন, ছাত্রলীগ নেতা রাব্বি, অমিও, ফাহিম, জনি, সাইদ, উৎসব, তাজুল, সাজিন খন্দকার, নিঝুম, শাহিল প্রমুখ।