অবিলম্বে সারা দেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে না দিলে ছাত্র জনতাদের নিয়ে তীব্র আন্দোলনের ডাক দেয়া হবে-ইশা ছাত্র আন্দোলন

নারায়ণগঞ্জ কথা :ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন নারায়ণগঞ্জ জেলার উদ্যোগে সারা দেশের সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার দাবিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।শাখা সভাপতি আব্দুল্লাহ মুহাম্মাদ হাসান এর সভাপতিত্বে ও সাধারন সম্পাদক মুহাম্মাদ আনোয়ার হোসাইন এর সঞ্চালনায় ।

সোমবার (৭ জুন  ) বিকাল ৪ টায় নারায়ণগঞ্জ ফতুল্লাশিবু মার্কেট মোড়ে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ মুজাহিদ কমিটি নারায়ণগঞ্জ জেলার সম্মানিত ছদর মাওলানা মুজিবুর রহমান।

উক্ত সভায় প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, দূর্ভাগ্যজনক হলেও সত্য বারংবার বলার পরেও সরকার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো খুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত নিচ্ছে না। বিশ্বের উন্নত রাষ্ট্রগুলো করোনায় বিপর্যস্ত হবার পরও স্বাস্থ্যবিধি মেনে সচেতনতার সাথে অনেক জায়গায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিয়েছে। অথচ বাংলাদেশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো বিগত বছর থেকে বন্ধ হয়ে আছে। যার দরুন শিক্ষা ব্যবস্থার আজ রীতিমতো ভঙ্গুর দশা। আজ করোনার কারণে সাধারণ মানুষের যেই অর্থনৈতিক দৈন্যদশা চলছে তার উত্তোরণের জন্যও সরকারের কোনো সদিচ্ছা দেখা যাচ্ছে না। প্রশাসনের সকল সেক্টরগুলোতে আজ বিশৃঙ্খল অবস্থা পরিলক্ষিত হচ্ছে। পাশাপাশি স্বাস্থ্যমন্ত্রণালয়ের উদাসীনতার কারনে জনগণের ভোগান্তির শিকার হতে হচ্ছে। শিক্ষাব্যবস্থার এহেন কার্যকলাপ আগামীতেও চলমান থাকলে এদেশের শিক্ষাব্যবস্থা অচিরেই ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে চলে যাবে।

সভাপতি বলেন, শুরু থেকেই সঠিক পরিকল্পনা থাকলে সরকার শিক্ষার্থীদের ভ্যাক্সিন প্রয়োগ করে চালু করা যেতো। কিন্তু তা না হওয়ায় শিক্ষার্থীরা এখনো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে যেতে পারছে না। যার দরুন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা সেশনজটের শিকার হচ্ছে। মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিকের শিক্ষার্থীদের মেধা যাচাই না করেই অটো পাশ দিয়ে শিক্ষাব্যবস্থায় পেরেক ঠুকে দেয়া হচ্ছে।

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধ থাকার কারণে শিক্ষার্থীদের মাদক এবং ইন্টারভিত্তিক আসক্তি প্রবলভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে। সারা বাংলাদেশের সকল অর্থনৈতিক ও বিনোদনমূলক প্রতিষ্ঠানগুলো খুলে দেয়া হলেও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো খুলে না দেয়া সরকারের একটি খেয়ালিপনা ছাড়া আর কিছুই হতে পারেনা। তাই শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিত পূর্বক অবিলম্বে সারা দেশের সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিতে হবে।

.

প্রোগ্রামে আরো উপস্থিত ছিলেন, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ নারায়ণগঞ্জ জেলার জয়েন্ট সেক্রেটারি শফিকুল ইসলাম, বাংলাদেশ মুজাহিদ কমিটির সাধারন সম্পাদক মুফতী মাসুম বিল্লাহ,  ইসলামী যুব আন্দোলন নাঃগঞ্জ জেলার সভাপতি মাওলানা শফিকুল ইসলাম, ইসলামী শ্রমিক আন্দোলন নাঃগঞ্জ জেলার সভাপতি মুহাম্মাদ ওমর ফারুক,জাতীয় শিক্ষক ফোরাম নাঃগঞ্জ জেলার সাধারন সম্পাদক কারী রেজাউল করিম। প্রোগ্রামে আরো উপস্থিত ছিলেন ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন নারায়ণগঞ্জ জেলা শাখার সহ সভাপতি আব্দুল হান্নান, সাংগঠনিক সম্পাদক মুহাম্মাদ আশরাফ আলী,দাওয়াহ ও প্রশিক্ষণ সম্পাদক মুহাম্মাদ আবু বকর, প্রকাশনা ও দফতর সম্পাদক মুহাম্মাদ মাকসুদুল হাসান, অর্থ ও কল্যান সম্পাদক মুহাম্মাদ আলী,বিশ্ববিদ্যালয় সম্পাদক মুহাম্মাদ সোহাগ আব্দুল্লাহ, মাদ্রাসা সম্পাদক মুহাম্মাদ ফরহাদ হোসাইন, স্কুল ও কলেজ সম্পাদক মুহাম্মাদ জাহিদ হাসান, সাহিত্য ও সংস্কৃতি সম্পাদক মুহাম্মাদ আবু সাঈদ, সদস্য মুহাম্মাদ সাইফুল ইসলাম ও মাহমুদুল হাসান সহ আরো অনেকে।

Shares