Home লিড নতুন প্রজন্মকে মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস জানতে হবে -এড. রিয়াজুর রহমান তালুকদার

নতুন প্রজন্মকে মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস জানতে হবে -এড. রিয়াজুর রহমান তালুকদার

0
নতুন প্রজন্মকে মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস জানতে হবে -এড. রিয়াজুর রহমান তালুকদার
নতুন প্রজন্মকে মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস জানতে হবে -এড. রিয়াজুর রহমান তালুকদার

নিজস্ব প্রতিবেদক : নারায়নগঞ্জ জেলা বঙ্গবন্ধু পরিষদের আইন বিষয়ক় সম্পাদক এড. রিয়াজুর রহমান তালুকদার বলেন আজকের যে স্বাধীন বাংলাদেশ যার পিছনে রয়েছে শহীদ মুক্তিযুদ্ধের রক্ত যে রক্তের দাগ আজো শুকায় নাই। 
অনেক কষ্টের বিনিময়ে আমারা এই স্বাধীনতা অর্জন করেছি, যা আমাদেরইই রক্ষাও করতে হবে। ওই পাকহানাদারআমাদের বহু বদ্ধিজীবিকেও হত্যা করা করেছে। যাতে আমাদের এই জাতি পৃথিবীর বুকে আর মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে না পারে। কিন্তু আজ আমরা মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়ে বিশ্বের দরবারে । আমাদের দেশের মুক্তি যুদ্ধের ইতিহাস অনেক ভয়াবহ সেই ইতিহাস নতুন প্রজন্ম জানতে হবে ।

শনিবার (২৭ এপ্রিল) সকালে  শহরের (পুরান কোর্ট সংলগ্ন)  সরকারি গণগ্রন্থাগারে নারায়ণগঞ্জ জেলা বঙ্গবন্ধু পরিষদে মিলনায়তনে আলোচনা সভা ও পরিচিত অনুষ্ঠানে
এসব ‍বলেন ।

তিনি বলেন, বর্তমানে আমাদের দেশের অর্থনৈতীক অবস্থা পার্শ্ববর্তী বেশকিছু দেশের চাইতে ভালো। আজকে যেই পাকিস্তান আমাদেরকে এত অত্যাচার করেছে, শোষন করেছে। বঙ্গবন্ধুর ইতিহাস বাংলাদেশের ইতিহাস । আজ জননেত্রী শেখ হাসিনা উন্নয়নের লক্ষে যে কাজ করে যাচ্ছেন তা বহির্বিশ্বে প্রশংসার দাবি রাখেন, আমাদের আজ তারা অনুসরণ করে।

তিনি আরো বলেন, আমাদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাদেরকে এই অবস্থানে এনে দিয়েছে।বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের রহমানের রক্ত , যে রক্ত দেশ প্রেমে স্বাধীনের চেতনায় বিশ্বাস করে। যেই শেখ মুজিব আমাদের অধিকারের জন্য লড়াই করেছে এখন তাঁর সুযোগ কন্যা উন্নয়নের লক্ষে কাজ করে যাচ্ছেন। ইতিহাসের কথা মনে রাখতে হবে, ত‍ৎকালীন পূর্ব পাকিস্তান আমাদেরকে বিভিন্ন ভাবে শোষন করতো। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সেই শোষনের বিরুদ্ধে কথা বলতো, তাই আমাদের উচিত এই শিক্ষা বর্তমান প্রজন্ম যারা আমাদের সন্তান তাঁদের  বঙ্গবন্ধু আদর্শে গড়ে তুলে দেশ প্রেম  মুক্তিযুদ্ধ ও স্বাধীনতার ইতিহাস জানতে হবে। শুধু মুজিব দিবস পালন করলে হবে, মুজিব আদর্শ তাঁদের শিক্ষা ও দিতে হবে।

অনুষ্ঠানে এড. হুমায়ুন কবীরের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মেসী অনুষদের সাবেক ডীন প্রফেসর ড. আ. হ. ম ফারুক, বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার প্রফেসর আশরাফ হোসেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের ডেপুটি রেজিষ্টার আব্দুল্লাহ আল-মামুন, বঙ্গবন্ধু পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির নেতা আব্দুল মতিন ভূইয়া, কেন্দ্রীয় নেতা মতিউর রহমান, কোষাধ্যক্ষ বঙ্গবন্ধু পরিষদের এডভোকেট সেলিনা ইয়াসমিন প্রমুখ। 

কেন্দ্রীয় নেতা বঙ্গবন্ধু পরিষদের আব্দুল মতিন ভূঁইয়া ও মোঃ মতিউর রহমান লাল্টু আলোচনা শেষে নতুন কমিটি ঘোষণা করে সকলকে পরিচয় করিয়ে দেন। এড. হুমায়ুন কবিরকে সভাপতি ও আবুল কালাম আজাদকে সাধারণ সম্পাদক করে ১০১ সদস্য বিশিষ্ট নারায়ণগঞ্জ জেলা বঙ্গবন্ধু পরিষদের নতুন কমিটি গঠন করা হয়েছে।