ফতুল্লায় খোলা মার্কেটের ছবি তোলার কারণে সাংবাদিকদের সাথে অশুভ আচরণ করেন দোকানদার

 

নারায়ণগঞ্জ কথা : নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলা পাগলায় সরকারি  নির্দেশনা অমান্য করে বিভিন্ন শপিং মল বা মার্কেট খোলা রাখায় কিছু দোকানদারকে জরিমানা করে ও মার্কেট বন্ধ করেন। এবং কমিটির লোকজন কে ডেকে এনে সরকারিভাবে নতুন কোনো নির্দেশনা না আসা পর্যন্ত মার্কেট বন্ধ রাখার কঠোর নির্দেশনা প্রদান করেন।

এ বিষয়ে সাংবাদিকরা খোঁজ নিয়ে জানতে পারেন পাগলা বাজার বহুমুখী সমবায় সমিতি নির্দেশ দিয়েছেন।

সরকারি নির্দেশনা অমান্য করে মার্কেট খোলা রাখার কারণ জানতে চাইলে,বাজার সমিতির সদস্যরা সঠিক উত্তর না দিয়ে বিভিন্ন কথা বলে বিষয়টি আড়াল করার চেষ্টা করে এবং এরই মধ্যে সাংবাদিক মার্কেটের ছবি তোলার কারণে একজন দোকানদার সাংবাদিকদের সাথে অশুভ আচরণ করে এবং অশ্লীল ভাষায়  গালি দেন।

এ বিষয়টি মোবাইল ফোনে বাজার সমিতির সাধারণ সম্পাদক বাচ্চু কে জানালে তিনি হাসতে হাসতে বলেন, সরকারি নির্দেশনা অমান্য করে দোকান খোলা রাখার ক্ষমতা আমার বাবার নেই সত্যিই কি মার্কেট খোলা আমি জানিনা মার্কেট খোলা কিনা। বিষয়টি ইউ এন ও কে জানানোর কথা বললে, তিনি বলেন মিথ্যা কথা বইলেন না ইউএনও চলে গেছে আর আজ শুক্রবার মেজেস্টেড আসবেনা একথাটি সে বারবার বলেছিল আজ শুক্রবার মেজিস্টেড আসবেনা জানিনা কোন অদৃশ্য শক্তির কারণে বাজার কমিটির সাধারণ সম্পাদক বাচ্চু এই কথা বলতে পারে এমনকি চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিতে পারে শুক্রবার দিন ম্যাজিস্ট্রেট আসবে না।

পরে সাংবাদিকরা ফতুল্লা থানা অফিসার ইনচার্জ রকিবুল হাসান কে মার্কেট খোলা রাখার বিষয়টি জানালে, তিনি ইউ এন ও কে জানাতে বলেন । পরে বিষয়টি ইউ এন ও এবং নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসক কে বিষয়টি জানালে তারা সাথে সাথে সরোজমিনে এসে মার্কেট বন্ধ করে ও কিছু দোকানদারকে জরিমানা করে।

শুক্রবার (১৬ এপ্রিল ) দুপুরে এ অভিযান পরিচালনা করেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ আজিজুল হক, এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট নাস‌রিন আক্তার ও সান‌জিদা আক্তার অভিযান পরিচালনা করেন। অভিযানে ফতুল্লা পাগলা কয়েকটি শপিংমল, ফতুল্লা সমবায় মা‌র্কেট, ও পঞ্চব‌টি শ‌পিংমল গু‌লো বন্ধ রাখার নির্দেশ দেন।

এদিকে  সরকারঘোষিত সাত দিনের লকডাউনের কথা থাকলেও নারায়ণগঞ্জ সদর উপ‌জেলার কোথাও মানা হয়নি লকডাউন। দূরপাল্লার বাস চলাচল বন্ধ থাকলেও আগের মতোই চলেছে সিএনজিচালিত অটোরিকশা, ব্যাটারিচালিত রিকশা ও ইজিবাইক। বেশির ভাগ বিপণিবিতান ও দোকানের মালিকেরা দোকানপাট খুলেছেন। বেলা সাড়ে তিনটার দি‌কে উপজেলা প্রশাসন উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে।

উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ আজিজুল হক বলেন, সরকারের নির্দেশ রয়েছে লকডাউন চলার সময়ে বিপণিবিতান ও দোকানপাট বন্ধ রাখতে হবে। এ নির্দেশনা উপেক্ষা করে স্বাস্থ্যবিধি না মেনে যেসব দোকান খোলা রাখবে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ সময় পাগলা বাজার বহুমূখি সমবায় সমিতির সাধারন সম্পাদক মাহবুবুর রহমান বাচ্চু বলেন, আরে ভাই আমিতো জানিনা মার্কেট খুলেছে আর সব জায়গাই মার্কেট খুলা আছে, আর আমরা লকডাউন দেখাশোনার জন্য নতুন আহবায়ক কমিটি করেছি তারাই মার্কেট দেখাশোনা করে।

 

নারায়ণগঞ্জ কথা এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

Shares