Home খেলাধুলা মাদক ও সন্ত্রাসী কার্যক্রম থেকে বিরত থাকতে খেলাধুলার বিকল্প নেই- আব্দুল মালেক মুন্সি

মাদক ও সন্ত্রাসী কার্যক্রম থেকে বিরত থাকতে খেলাধুলার বিকল্প নেই- আব্দুল মালেক মুন্সি

মাদক ও সন্ত্রাসী কার্যক্রম  থেকে বিরত থাকতে খেলাধুলার বিকল্প নেই- আব্দুল মালেক মুন্সি

ফতুল্লা প্রতিনিধি মোঃ শেখ কাউসার : ডিসেম্বর মাস মহান বিজয়ের মাস। দীর্ঘ নয় মাস যুদ্ধ করে এদেশ স্বাধীন হয়েছে। বিজয়ের ৪৯ তম বছরে পদার্পণ করল বাঙালি জাতি। বিজয়ের মাস জুড়েই সহিদ নগর ও বাদামতলার যৌথ উদ্যোগে নাইট ক্রিকেট টুর্নামেন্টের খেলা চলমান থাকে ‌‌। এই টুর্নামেন্টের শুভ উদ্বোধন সহ বেশ কয়েকটি খেলার মাঝে উপস্থিত ছিলেন পূর্ব বাদামতলা যুব উন্নয়ন কমিটির সভাপতি আনোয়ার হোসেন রনি।

অনুষ্ঠানটির ফাইনাল খেলার বিজয়ীদের মহান বিজয় দিবস এর শুভক্ষনে বৃহস্পতিবার (১৭ ডিসেম্বর) পুরষ্কার বিতরণ করা হয়।

প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, কুতুবপুর ইউনিয়ন আওয়ামী যুবলীগ নেতা, মালেক সংসদের প্রতিষ্ঠাতা (সাবেক ছাত্রনেতা) মোঃ আব্দুল মালেক মুন্সি।

অনুষ্ঠানটির সভাপতি ছিলেন, পূর্ব বাদামতলা যুব উন্নয়ন কমিটির সভাপতি, সাবেক কদমতলী থানা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ সাধারণ সম্পাদক, বর্তমানে ঢাকা-৪ কদমতলী থানা ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সদস্য আনোয়ার হোসেন রনি।

সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, ফতুল্লা থানা আওয়ামী যুবলীগ সহ-সভাপতি আশরাফুল ইসলাম জাকির সহ কুতুবপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ ও এর সহযোগী অঙ্গ সংগঠনের সকল সদস্যবৃন্দ এবং মালেক সংসদের সদস্য হাজী রোমান, জাহাঙ্গীর, রুবেল সহ মালেক সংসদের সকল সদস্যবৃন্দ।

অনুষ্ঠানের শুরুতে প্রধান অতিথি মোঃ আব্দুলমালেক মুন্সীকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান ও ক্রেস্ট বিতরণ করেন গাজী মুজাহিদ মোল্লা।এরপর নাইট ক্রিকেট টুর্নামেন্টের রানার্সআপ দলকে ২৪ই ইঞ্চি এলইডি টিভি এবং বিজয়ী দল তুষারধারা স্পোর্টিং ক্লাবকে ৩২ ইঞ্চি এলইডি টিভি হাতে তুলে দেন প্রধান অতিথি মোঃ আব্দুল মালেক মুন্সি।প্রধান অতিথি মোঃ আব্দুল মালেক মুন্সি মালেক সংসদ এর সকল সদস্য এবং এলাকার যুব সমাজকে বিজয়ের ফুলের শুভেচ্ছা উপহার দেন।

এসময় প্রধান অতিথি মোঃ আব্দুল মালেক মুন্সি বলেন, মহান বিজয় দিবসের এই মাসে মাদকমুক্ত কুতুবপুর ইউনিয়নের যুব সমাজ গড়তে খেলাধুলার কোন বিকল্প নেই।যুবসমাজকে মাদকমুক্ত রাখতে পারা এদেশের জন্য আরেকটি মুক্তিযুদ্ধের সমান। যারা ধর্ম ব্যবসার নামে বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে কটুক্তি করে এবং বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাঙার দুঃসাহসিকতা দেখায় তাদেরকে দ্রুত আইনের আওতায় আনা একান্ত প্রয়োজন।

তিনি আরো বলেন, আমার নেতা নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব একেএম শামীম ওসমান এর সহধর্মীনি আমার মাতৃতুল্য ভাবির জন্য দোয়া করি তিনি যেন দ্রুুুত সুস্থ হয়ে উঠেন এবং এই অনুষ্ঠানটির সভাপতি আমার ছোট ভাই আনোয়ার হোসেন রনি বর্তমানে অসুস্থ। আমার ছোট ভাইয়ের জন্য সবাই দোয়া করবেন। তিনি যেন দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠেন।

সর্বশেষে তিনি বলেন, সামনে আসছে নতুন একটি বছর। দোয়া করি বিজয়ের এই মাসটিতে যেন কুতুবপুর বাসি সকলে সুস্থতার সাথে জীবন যাপন করতে পারে। আমার নেতা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তার পরিবারের সকল শহীদ সদস্য সহ মুক্তিযুদ্ধের সময় শহীদ সকল সদস্যদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা জানান কুতুবপুরের এই মহান নেতা।

অনুষ্ঠানটির আয়োজনে ছিলেন, গাজী মুজাহিদ মোল্লা, হোসেন আকাশ, নাঈম, শাওন, সোহাগ তামিম ও জাহিদ।অনুষ্ঠানটি মনমুগ্ধকর বিজয় দিবসের শ্রুতি মধুর সাংস্কৃতিক সঙ্গীত আয়োজনের মধ্য দিয়ে শেষ হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Shares
error: Alert: Content is protected !!